Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
উত্তর-পূর্বাঞ্চলে গত চার বছরে নিরাপত্তা পরিস্হিতির বহুগুন উন্নত হয়েছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের বার্ষিক রিপোর্ট
PIB, 21/12/2018, New Delhi

 ২০১৮ সালে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের বিভিন্ন কাজের উল্লেখযোগ্য হল, জম্মু-কাশ্মীরের স্হানীয় সংস্হাগুলির নির্বাচন নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করা। এবছরেই উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলির ওপর থেকে আংশিকভাবে স্বশস্ত্র বাহিনীর বিশেষ ক্ষমতা আইন প্রত্যাহার করা হয়েছে। এছাড়া অসমে শান্তিপূর্ণভাবে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি প্রকাশ, দেশে বাম উগ্রপন্হার সমস্যার মোকাবিলা, পশ্চিম সীমান্তে অত্যাধুনিক বেড়ার ব্যবস্হা, সারা দেশে জরুরীকালীন ‘১১২’ নম্বরের পরিষেবা চালু করার বিষয়গুলি এ বছরের উল্লেখযোগ্য কাজের তালিকা পড়ে। অন্যদিকে ভারত-চীন দ্বিপাক্ষিক নিরাপত্তা সহযোগিতা চুক্তিও এবছরই স্বাক্ষরিত হয়েছে এবং জাতীয় পুলিশ স্মারকেরও উদ্বোধন হয়েছে এই বছরেই। ২০১৮ সালে দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা পরিস্হিতি মোটামুটি শান্তিপুর্ণ ছিল। বিশেষ করে বাংলাদেশ, চীন ও মায়ানমার সীমান্তে পরিস্হিতির উল্লেখযোগ্য উন্নতি হয়েছে। পশ্চিম সীমান্তে নিরাপত্তা বাহিনী অস্ত্রবিরতি লঙ্খনের বিরুদ্ধে যথাযথ জবাব দিয়েছে এবং অনুপ্রবেশের চেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়েছে। জম্মু-কাশ্মীরে নিরবচ্ছিন্নভাবে সন্ত্রাসবাদ বিরোধী অভিযানের ফলে এক বিরাট সংখ্যায় সন্ত্রাসবাদী নিহত হয়েছে এবং এরফলেই স্হানীয় সংস্হার নির্বাচন মসৃনভাবে সম্পন্ন হয়েছে। উত্তর-পূর্বাঞ্চলে গত চার বছরে নিরাপত্তা পরিস্হিতির বহুগুন উন্নত হয়েছে যার প্রেক্ষিতে মেঘালয় এবং অরুনাচলের কিছু অংশ থেকে সশস্ত্র বাহিনীর বিশেষ ক্ষমতা আইন প্রত্যাহার করা হয়েছে। দেশের বাম উগ্রপন্হা অধ্যুষিত জেলার সংখ্যা ২০১৩’র ৭৬ থেকে কমে চলতি বছরে ৫৮-তে দাঁড়িয়েছে।
    কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে মহিলাদের নিরাপত্তার বিষয়গুলিকে যথাযথ গুরুত্ব দেবার জন্য একটি নতুন ডিভিশান গড়ে তোলা হয়েছে। এছাড়া মহিলা ও শিশুদের বিরুদ্ধে অপরাধ মোকাবিলায় দুটি পৃথক পোর্টাল খোলা হয়েছে। চলতি বছরে রাজ্যগুলির প্রাকৃতিক বিপর্যয় মোকাবিলার তহবিলে কেন্দ্রীয় সরকারের অংশদারিত্ব ৭৫% থেকে বাড়িয়ে ৯০% করা হয়েছে। এছাড়া বিদেশ থেকে আগত পর্যটকদের সুবিধার্থে ই-ভিসা কর্মসূচি সফল হয়েছে।
    চলতি বছরে গুজব ছড়িয়ে নিরীহ মানুষকে হত্যার মতো গুন্ডামি বন্ধ করতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। রাজ্যগুলিকে এ বিষয়ে দু-দফায় লিখিত পরামর্শ দেওয়া হয়েছে এবং হিংস্র জনতার হাতে নিরীহ মানুষের হত্যার ঘটনা ঠেকাতে উচ্চপর্যায়ের কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি মন্ত্রী গোষ্ঠী তৈরী করে সমগ্র বিষয়টির উপর নজরদারির ব্যবস্হা হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানীগুলির প্রতিনিধিদের সঙ্গে গুজব ছড়ানো ঠেকাতে এবং ইন্টারনেটের মাধ্যমে শারীরিক নিগ্রহমূলক প্রচার বন্ধে বেশ কয়েকবার বৈঠক করা হয়েছে। সীমান্তে নিরাপত্তা বাড়াতে সরকার এবছর ৬টি অতিরিক্ত সীমান্ত নিরাপত্তা বাহিনীর ব্যাটেলিয়ান গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়া আই.টি.বি.পি-র ও কয়েকটি অতিরিক্ত ব্যাটেলিয়ান চালু করার বিষয়টি বিবেচনা করা হচ্ছে। পুলিশবিহীনির আধুনিকীকরণের অঙ্গ হিসাবে জাতীয় অপরাধ রেকর্ড ব্যুরো পুলিশের ন’টি পরিষেবা সংক্রান্ত একটি মোবাইল অ্যাপ চালু করেছে। অন্যদিকে চলতি বছরেই মে মাস থেকে সারা দেশের যেকোনো ধরনের সম্মেলন সেমিনার ও কর্মশালা আয়োজনের জন্য অনলাইন পদ্ধতিতে সরকারি অনুমতি প্রদানের জন্য একটি ব্যবস্হা চালু করা হয়েছে। অনুরূপ বিভিন্ন ধরনের কাজে নিরাপত্তা অনুমোদনের জন্য ই-সহজ নামে একটি পোর্টাল খোলা হয়েছে।
    চলতি বছরে রাজ্য সরকারগুলির সাথে কেন্দ্রের সম্পর্ক আরো ভালো করতে আন্তঃরাজ্য পর্ষদ এবং জোনাল পর্ষদের বৈঠক আয়োজনের নিয়মিত ব্যবস্হা হয়েছে। প্রাকৃতিক বিপর্যয় মোকাবিলায় এবছরেও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক বহু উল্লেখযোগ্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।
    এবছর থেকেই দেশের সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মান হিসাবে পদ্ম পুরস্কারগুলিকে জনসাধারণের একান্ত নিজস্ব করে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এবছই প্রথম বিভিন্ন শ্রেণীর পদ্ম পুরস্কারের জন্য রেকর্ড সংখ্যক প্রায় ৫০ হাজার মনোনয়ন পাওয়া গিয়েছে।
    এবছর থেকে ছাত্রছাত্রী ও পুলিশের মধ্যে মেলবন্ধন সুদৃঢ় করতে ছাত্র-পুলিশ ক্যাডেট কর্মসূচি চালু করা হয়েছে। এবছরই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক চন্ডীগড় প্রশাসনকে দু-চাকার গাড়ি চড়ার সময় বাধ্যতামূলক হেলমেট পরার নিয়ম শিখ মহিলাদের জন্য শিথিল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.