Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
৭ মার্চকে সারা দেশে “জনৌষধি দিবস’ রূপে উদযাপন করা হবে, দেশের ৬৫২টি জেলায় ৫০৫০টি’র মত জনৌষধি কেন্দ্র চালু বর্তমান : মনসুক মান্ডবিয়া
PIB, 06/03/2019, New Delhi
 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্যোগ এবং নির্দেশে দেশের সকল অংশের জনগণের জন্য মানসম্পন্ন এবং সাশ্রয়ী চিকিৎসা পরিষেবা পৌঁছে দিতে ভারত সরকার একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ “প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় জনৌষধি পরিযোজনা(পিএমবিজেপি)র মাধ্যমে গুণমানসম্পন্ন জেনেরিক মেডিসিন জনপ্রিয় করে তোলা হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় রসায়ন ও সার, সড়ক পরিবহন ও জাহাজ মন্ত্রী মনসুক মান্ডবিয়া৷ আজ সাংবাদিকদের সাথে আলোচনাকালে এই তথ্য জানিয়েছেন তিনি৷


মন্ত্রী জানান, জেনেরিক মেডিসিন সম্পর্কে আগ্রহ সঞ্চার করতে ও জনসচেতনতা তৈরি করতে আগামী ৭ মার্চ ২০১৯ তারিখটিকে সারা দেশে “জনৌষধি দিবস’ হিসাবে পালন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ এদিন দুপুর ১টায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারা দেশের জনৌষধি কেন্দ্রগুলির মালিক ও সুবিধাভোগীদের সাথে মত বিনিময় করবেন৷ এ ব্যাপারে ভবি্ষ্যৎ পরিকল্পনার প্রশ্নে শ্রী মান্ডবিয়া জানান- ২০২০ সালের মধ্যে প্রত্যেক ব্লকে অন্তত একটি পিএমবিজেপি কেন্দ্র স্থাপন করা হবে৷


প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিভঙ্গির উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, উপযুক্ত মানসম্পন্ন ওষুধের অভাবে যাতে একজন গরিব মানুষের মৃত্যু না হয় দেশে৷ মান্ডবিয়া বলেন, জনপ্রিয়তার জন্য অনেক চিকিৎসক এখন জেনেরিক মেডিসিন ব্যবস্থাপত্রে লিখে দিচ্ছেন এবং এই কারণে দেশের ৬৫২টি জেলায় ৫০৫০টি জনৌষধির বিপনী খোলা হয়েছে৷ তিনি জানান- প্রায় ১০-১৫ লক্ষ মানুষ প্রতিদিন জনৌষধি নিয়ে উপকৃত হচ্ছেন এবং জেনেরিক মেডিসিনের বাজার গত তিনবছরে তিনগুণ বৃদ্ধি পেয়ে ২ শতাংশ থেকে ৭ শতাংশ হয়েছে৷


মন্ত্রী শ্রী মান্ডবিয়া বলেন, স্বাস্থ্য হলো উন্নয়নের একটি বড় অংশ এবং এই কারণে আষুস্মান ভারত, পিএমবিজেপির মত বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে সরকার ক্রমশঃ কাজ করে চলেছে সকলের জন্য সাশ্রয়ী মূল্যে উন্নত স্বাস্থ্য পরিষেবা পৌঁছে দিতে৷ জীবনের জন্য হুমকি স্বরূপ এমন বহু রোগ থেকে মুক্তি দিতে এবং রোগীদের খরচ কমানোর ক্ষেত্রে জনৌষধি একটা বড় ভূমিকা পালন করে চলেছে৷ পিএমবিজেপি প্রকল্প চালু হওয়ার ফলে সাধারণ মানুষের প্রায় ১০০০ কোটি টাকা সঞ্চয় হয়েছে৷ এই ওষুধ গড়পড়তায় বাজার দামের তুলনায় ৫০ থেকে ৯০ শতাংশ পর্যন্ত কমে পাওয়া যাচ্ছে বলেও তিনি জানিয়েছেন৷


ফার্মাসিউটিক্যালের সম্পাদক শ্রী জে পি প্রকাশ বক্তব্যের শুরুতে জানান, আগামীকাল “জনৌষধিদিবস’ উপলক্ষে সমস্ত পিএমবিজেপি কেন্দ্রে একটি করে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে এই প্রকল্প সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে৷ এই সকল অনুষ্ঠানে থাকবেন চিকিৎসকরা, স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা, স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার প্রতিনিধি ও সুবিধাভোগীরা, যা সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে সহায়ক হবে৷


সিইও, ব্যুরো অব ফার্মা পিএসইউস অব ইন্ডিয়া (বিপিপিআই) শ্রী সচিন কুমার সিং বলেন, পিএমবিজেপি নিয়মিতভাবে এবং স্থায়ী স্ব-রোজগারেরও একটা ভাল সুযোগ করে দিচ্ছে৷ বিপিপিআইয়ের একটি সমীক্ষার কথা উল্লেখ করে তিনি জানান, গড়ে প্রত্যেকটা জনৌষধি দোকানে প্রতিমাসে বিক্রির পরিমাণ অন্যান্য সামগ্রি নিয়ে বেড়ে ১.৫০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হয়েছে৷ সমস্ত বিএমবিজেপি কেন্দ্রে যাতে পর্যাপ্ত পরিমাণে জনৌষধি পাওয়া যায় তারজন্য দিল্লি, গুয়াহাটি, ব্যাঙ্গালুরু ও চেন্নাইয়ে চারটি বৃহৎ পণ্যাগার স্থাপন করা হয়েছে৷
পিএমবিজেপি প্রকল্পে যে সমস্ত স্বাস্থ্য সামগ্রি বাজারজাত করা হয়েছে এবং পিএমবিজেপি কেন্দ্রগুলিতে মজুত রয়েছে সেগুলির একটা বিস্তৃত উপস্থাপনাও তুলে ধরেন শ্রী সিং৷ এরমধ্যে রয়েছে ২.৫০ টাকা মূল্যের জনৌষধিসুবিধাঅক্সো-বায়োডিগ্রেডবল স্যানিটারি ন্যাপকিন, প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ১৪০ টাকা মূল্যের ৫টি জনৌষধিস্বাভিমান ডাইপারস, ২০ টাকা দামে ৫টি ব্যাবি ডাইপারস, ২০ টাকা মূল্যের জনৌষধি অঙ্কুর প্রেগনেন্সি টেস্ট কিট, ৩৫ টাকা মূল্যে ৩০০ গ্রাম প্যাকে জনৌষধিইউরিয়া এনার্জি ড্রিঙ্ক সহ আরেো অনেক কিছু৷

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.