Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
পুইলা জাতি উঠলো পার্টির স্লোগান পাহাড়ে অশান্তির বাতাবরণ সৃষ্টি করছে, অভিযোগ আইপিএফটির
By Our Correspondent, 12/04/2019, Agartala

 টাকারজলা বিধানসভার অমরেন্দ্র নগরে নারকীয় সন্ত্রাস কান্ডে অভিযুক্তরা সদ্য কংগ্রেসে যোগ দেওয়া সিপিএমের ক্যাডার। গত ১ এপ্রিল প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি মহারাজ প্রদ্যুৎ কিশোর দেব বর্মন সেখানকার সিপিএম ক্যাডারদের কংগ্রেস দলে বরণ করেছিলেন। এরাই পশ্চিম ত্রিপুরা লোকসভা আসন এর ভোট গ্রহণের দিন অমরেন্দ্র নগরে সন্ত্রাসের বাতাবরণ সৃষ্টি করে। নব চন্দ্রপাড়া এস বি স্কুল প্রাঙ্গনে আইপিএফটি সমর্থকদের উপর অতর্কিতে হামলা করে কংগ্রেসের নামধারী সিপিএমের ক্যাডাররা। এমনই অভিযোগ আইপিএফটি এর টাকারজেলা বিভাগীয় নেতৃত্তের। হামলায় ছয় জন আইপিএফটি সমর্থক গুরুতর জখম হয়েছে ।এর মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক ।আটটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করেছে কংগ্রেস নামধারী দুষ্কৃতীরা। আইপিএফটি টাকার জলা বিভাগীয় সম্পাদক মনমোহন দেববর্মা জানান গত বিধানসভা নির্বাচনের পূর্বে অমরেন্দ্র নগরে নারকীয় সন্ত্রাস করেছিল সিপিএম এর ক্যাডাররা। এদের অত্যাচারে ২৫বছর বিরোধীরা কোন কাজ করতে পারেনি। আক্রান্ত হয়েছে বারবার ।এই ক্যাডারদের কেই আশ্রয় দিয়েছেন মহারাজ প্রদ্যুৎ কিশোর দেব বর্মন ।জনবিচ্ছিন্ন সিপিএমের ক্যাডাররা কংগ্রেসের ছত্রছায়ায় আশ্রয় নিয়ে ফের সন্ত্রাস শুরু করেছেন ।বৃহস্পতিবার ভোট চলাকালীন সময়ে দা লাঠি রড নিয়ে কংগ্রেসী নামধারী সিপিএমের ক্যাডাররা আইপিএফটি সমর্থকদের ওপর অতর্কিতে হামলা চালায় ।এই ঘটনায় টাকার জলা এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। ক্ষোভে ফুঁসছে উপজাতিরা ।উপজাতি ভিত্তিক রাজনৈতিক দলের অস্তিত্ব কে নিশ্চিহ্ন করার লক্ষ্যেই প্রদ্যুৎ কিশোর দেব বর্মন সিপিএম ক্যাডারদের দিয়ে সন্ত্রাসের বাতাবরণ সৃষ্টি করেছে। পুলা জাতীয় পার্টির স্লোগান বিপদজনক বলে মনে করছে উপজাতি অংশের মানুষেরা ।এই স্লোগান জাতি ও উপজাতির মধ্যে নতুন করে বিভাজন এবং বিদ্বেষ সৃষ্টি করার ক্ষেত্রে যথেষ্ট । এ ধরনের  রাজনীতির আজ আমদানি হওয়ার পর জনজাতিরা সমতলে যেতে ভয় পাচ্ছে ।আবার বাঙালি অংশের মানুষ পাহাড়ে যেতে ভয় পাচ্ছে ।এগুলি দেওলিয়া  রাজনীতি ছাড়া আর কিছুই নয় ।মাটির সঙ্গে যাদের সম্পর্ক নেই তারা ভোটের মুখে উড়ে এসে জুড়ে বসে অশান্তি সৃষ্টি করতে চাইছে ।জাতি বাদে ভর করে ভোটের ফায়দা তোলার জন্য যা ইচ্ছা তা করে যাচ্ছে। পঁচিশ বছর যারা লুটেপুটে খেয়েছে ।জনজাতি দের আর্থসামাজিক উন্নয়নে যাদের কোন ভূমিকা ছিল না। সন্ত্রাস সৃষ্টি করে পাহাড়ে উন্নয়ন স্তব্ধ করে দিয়েছে ।সেই সকল হার মাদরা আজ কংগ্রেস দলে আশ্রয় নিচ্ছে ।টাকার জলার আইপিএফটি নেতৃত্ব জানান এ ধরনের ঘটনা নিন্দনীয় ।অমরেন্দ্র নগরের নরকীয় সন্ত্রাসের ঘটনার বিরুদ্ধে ইচ্ছে করলে তারা তীব্র আন্দোলনে যেতে পারেন ।রাস্তা অবরোধ এ যেতে পারেন ।কিন্তু তারা তা করবেন না ।যেহেতু তারা শাসক দল তাই এলাকার শান্তি সম্প্রীতি রক্ষায় তারা কাজ করবেন ।তাদের অভিযোগ কংগ্রেস দল এলাকার সিপিএম ক্যাডার দের আশ্রয় দিয়ে পাহাড়ে অশান্তি সৃষ্টি করতে চাইছে। তারা  তা কোনদিনও হতে দিবেন না।  বিদ্বেষ মূলক স্লোগানে সাড়া না পেয়ে সমাজবিরোধীদের দিয়ে টাকার জলা অশান্তি সৃষ্টি করে ফায়দা তুলতে চেয়েছিল কংগ্রেসের নেতৃত্ব ।কিন্তু কোন লাভ হবেনা ।লোকসভা নির্বাচনের পরে এদের আর এলাকায় দেখা যাবে না ।রাজনৈতিক ভাবে এরা পরাস্ত হয়ে এলাকা ছাড়বে। আসন্ন ভিলেজ কাউন্সিল নির্বাচনে ওরা টের পাবে কত ধানে কত চাল।

টাকার জলার আইপিএফটি নেতৃত্ত জানান অনেক লড়াই সংগ্রাম করে মানুষকে সঙ্গে নিয়ে আমরা পরিবর্তন করেছি ।সিপিএমের সন্ত্রাসের হাত থেকে মুক্ত হয়েছি ।এখন কংগ্রেস দল সেই সন্ত্রাসীদের মদত জুগিয়ে ফায়দা তুলতে চাইছে। আইপিএফটি ভোট কেটে সিপিএমকে সুবিধা দিতে চাইছে ।আইপিএফটি বিভাগীয় সম্পাদক মনমোহন দেববর্মা বলেন আমরা যখন অন্যায় অত্যাচার সহ্য করেও লড়াই-সংগ্রাম করেছি তখন কাউকে পাশে পাইনি ।আর এখন যখন মানুষ মুক্তির স্বাদ পেয়েছে। অন্যায় অত্যাচার থেকে রেহাই পেয়েছে তখন ঘোলা জলে মাছ শিকার করতে মাঠে নেমে পড়েছে। তিনি আরো জানান অমরেন্দ্র নগরে যাঁরা দা লাঠিসোটা নিয়ে হামলা করেছে তারা এলাকারই মানুষ ।তারা কোন দলের সমর্থক ছিল তা সবাই জানে ।জন বর্জিত হার্মাদ বাহিনি বর্তমানে মহারাজার হাত ধরে সর্বভারতীয় কংগ্রেস দলে যোগ দিয়ে ফের সন্ত্রাস সৃষ্টি করছে। রাজনৈতিকভাবে এর মোকাবেলা করা হবে বলে তিনি জানান। পুইলা জাতী উলো পার্টির স্লোগান পাহাড়ে কোন প্রভাব ফেলতে পারেনি ।মন্তব্য আইপিএফটি বিভাগীয় নেতৃত্তের। জনজাতি রা লোকসভা নির্বাচনে সিপিএম কংগ্রেসকে প্রত্যাখ্যান করেছেন .

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.