Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
পাঁচ কোটি পনের লক্ষ টাকা খরচে তৈরী গোলাঘাঁটি স্কুলের দ্বিতল ভবনের উদ্বোধন
By Our Correspondent, 18/06/2019, Agartala

ক্লাস রুম ১৯ টি, স্টোর ২ টি, ডাইনিং হল ১ টি, কমিউনিটি হল ১ টি। শৌচাগার ৪ টি। ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে হাউজিং বোর্ড কাজ শুরু করে ।কাজ শেষ হয় ২০১৮ সালে শেষের দিকে। এদিন এই স্কুলের উদ্বোধন করলেন উপ মুখ্যমন্ত্রী যীষ্ণু দেববর্মন।
১৯৩৭ সালে বাস ছনের ছাউনি বিশিষ্ট মাটির দেওয়াল এর ঘরে পথ চলা শুরু করেছিল গোলাঘাঁটি জুনিয়র বেসিক স্কুল। ধীরে ধীরে স্কুলটি উচ্চ বুনিয়াদি এবং পরবর্তী সময়ে হাজার ১৯৯৬ সালে উচ্চ বিদ্যালয় পরিণত হয় ।২০১৮ সালে স্কুলটি ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয় রূপান্তরিত হয় ।বর্তমানে স্কুলে তৈরি হয়েছে সুদৃশ্য দ্বিতল বিশিষ্ট ইমারত। মঙ্গলবার ঝাঁ-চকচকে দ্বিতল ভবনের দ্বারোদ্ঘাটন করেন উপমুখ্ মন্ত্রী  জিষ্ণু দেব বর্মন ।পাকা ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত ভাষণ রাখেন প্রধান শিক্ষিকা কিরণ প্রভা দেববর্মা। উপমুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেব বর্মন ছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক বীরেন্দ্র কিশোর দেব বর্মা জেলা শিক্ষা আধিকারিক হাবুল লোধ, বিদ্যালয় পরিদর্শক আগুন কুমার ত্রিপুরা ,এসএমসি চেয়ারপারসন সুব্রত দেবনাথ। গ্রাম প্রধান লিটন মারাক । মেম্বার পুষ্পিতা রায়। স্কুলের প্রথম প্রধান শিক্ষক প্রফুল্ল কুমার চৌধুরী সমাজ সেবক নিতাই শীল এবং যাদব ঘোষ প্রমূখ। দুপুর ১২ টায় শুরু হয় অনুষ্ঠান। উদ্বোধনী সংগীত পরিবেশন করেন স্কুলের ছাত্রীরা। মঙ্গল প্রদীপ জ্বালিয়ে অনুষ্ঠানের শুভ আরম্ভ করে ফিতা কেটে দ্বিতল ভবনের উদ্বোধন করেন উপ মুখ্যমন্ত্রী সহ অতিথিরা। উপমুখ্যমন্ত্রী ভাষণে বলেন সরকার গুনগত শিক্ষার উপর বিশেষ জোর দিয়েছে। ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন এই স্কুল থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে যে যত দূরেই চাকরি করো না কেন গোলাঘাটি যে তোমার জন্মভূমি তা ভুললে চলবে না ।এই স্কুল থেকে শিক্ষা নিয়ে তুমি ভালো শিক্ষক হও। ভালো ইঞ্জিনিয়ার হও।ভালো ডাক্তার হও। ভালো কৃষক হও। ভাল মানুষ হও ।এই স্কুলে ইংরেজী শিক্ষা চালু হয়েছে ।ইংরেজি শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। যতই ইংরেজি শিক্ষায় শিক্ষিত হওনা  কেন ভুলে গেলে চলবে না আমি ভারতীয় ।কাজে ভারতীয় সংস্কৃতি আমাদের রক্ষা করতে হবে ।

উপমুখ্যমন্ত্রী এদিন স্কুলের কয়েকটি দাবি পূরণের আশ্বাস দেন। একটি সাইকেল স্ট্যান্ড, বাউন্ডারি ওয়াল, বিদ্যুৎ সংযোগ এবং পানীয় জল এর সমস্যা নিরসনের কাজ দ্রুত শুরু হবে বলে তিনি ভাষণে বলেন। বিধায়ক বীরেন্দ্র কিশোর দেববর্মা এই পবিত্র শিক্ষাঙ্গনের গরিমা রক্ষায় সকল অভিভাবক শিক্ষক শিক্ষিকা ছাত্র ছাত্রীদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন সরকারি টাকায় এই পাকা ভবন নির্মাণ হয়েছে ।তা রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব সবাইকে নিতে হবে ।স্কুলের প্রাক্তন তথা প্রথম প্রধান শিক্ষক প্রফুল্ল কুমার চৌধুরী অতীত দিনের কথা স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বলেন ১৯৯৮ সালে এই স্কুল থেকে প্রথম ছাত্র ছাত্রীরা মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসে ।প্রথম বছরই শতভাগ পাশের রেকর্ড করে। তিনি বর্তমান শিক্ষক-শিক্ষিকাদের প্রতি আহ্বান রাখেন আগামী দিনগুলিতে মাধ্যমিক পরীক্ষায় শতভাগ পাসের রেকর্ড গড়ার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য। জেলা শিক্ষা আধিকারিক হাবুল লোধ বলেন নতুন দ্বিতল ভবনে অসংখ্য ক্লাস রুম রয়েছে ।ডাইনিং হল এবং কমিউনিটি হল তৈরি হয়েছে। তিনি বলেন এই স্কুলের প্রাতঃ বিভাগ এবং মধ্যান্য বিভাগের ক্লাস একই সময়ে শুরু করার বিষয়ে দপ্তর চিন্তাভাবনা করছে ।এতে করে স্কুলের শিক্ষার মান আরো উন্নত হবে। এদিন নবম শ্রেণীতে পাঠরত ছাত্রীদের হাতে বাইসাইকেল তুলে দেন উপ মুখ্যমন্ত্রী এবং স্থানীয় বিধায়ক ।মহতী অনুষ্ঠানে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের দ্বারা পরিবেশিত মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সকলের নজর কাড়ে ।কাঠফাটা রোদ কে উপেক্ষা করেও স্কুলের বর্তমান প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী এবং অভিভাবকদের সমাগম ছিল চোখে পড়ার মতো।

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.