Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
পূর্বেকার পদ্ধতি বহাল রেখে সম্পদ কর অতি সামান্য বাড়ানো হয়েছে ঃ রতন
By Our Correspondent, 03/10/2019, Agartala
 

সম্পদ করে খুব বেশি পরিবর্তন আনেনি রাজ্য সরকার৷ অধিকাংশ ক্ষেত্রে একদমই বাড়েনি৷ পূর্ববর্তী সরকার যা নির্ধারণ করেছিল অধিকাংশ ক্ষেত্রে তেমনটাই রাখা হয়েছে৷ জানিয়েছেন মন্ত্রী রতন লাল নাথ৷

তিনি জানান- আগরতলা পুর নিগম এলাকাকে আগেই চারটি জোনে ভাগ করে সম্পদ কর নির্ধারণ করা হয়েছিল৷ ওয়ার্ড নম্বর ১৬ থেকে ২১ এবং ৩১ থেকে ৩৪ এই ৯টি ওয়ার্ডকে রাখা হয়েছে এ জোনে৷ বি জোনে রয়েছে ৫, ৯, ১১ থেকে ১৫, ২২ থেকে ২৫, ২৮, ৩৩, ৩৮ থেকে ৪০, ৪৫ ও ৪৬ এই ১৮টি ওয়ার্ডকে রাখা হয়েছে বি জোনে, ১ থেকে ১০, ২৬, ২৭, ২৯, ৩০, ৩৫ থেকে ৩৭, ৪১ থেকে ৪৪ ও ৪৭ থেকে ৪৯ এই ২২টি ওয়ার্ডকে রাখা হয়েছে সি জোনে এবং ৫৯টি বস্তি ও বিবেকানন্দ, রাধানগর ও জয়নগর এই তিনটি আবাসনকে রাখা হয়েছে ডি জোনে৷

আগে যেখানে এ ওয়ার্ডভুক্ত এলাকায় বেস ইউনিট এড়িয়া ছিল প্রতি এক হাজার স্কয়ার ফুটে ৫০ টাকা তা বেড়ে হয়েছে ৬০ টাকা, বি’র ক্ষেত্রে ৪৫ থেকে বেড়ে হয়েছে ৫০ টাকা ও সি’র ক্ষেত্রে ৪০ থেকে বেড়ে হয়েছে ৪৫ টাকা৷ ডি’র ক্ষেত্রে কিছু বাড়ানো হয়নি৷

শ্রীনাথ বলেছেন, ২০১৬ সালে তদানিন্তন বামফ্রন্ট সরকার যে পদ্ধতি মেনে এই হার তৈরি করেছিল এখনো সেই পদ্ধতিই হুবহু রাখা হয়েছে৷ আগরতলা সহ পুরপরিষদ ও নগর পঞ্চায়েতগুলিতে শুধুমাত্র বেস এড়িয়ার ক্ষেত্রে অতি সামান্য পরিবর্তন করা হয়েছে৷ এছাড়া বাকি সব পূর্বেকার মতই বহাল রয়েছে৷ অনেক ক্ষেত্রে হার কমে গেছে বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি৷

সব মিলিয়ে সম্পদ করের ক্ষেত্রে ভুমি ও বিল্ডিংয়ের জন্য ৩ শতাংশ, কনসারভেন্সি ১ শতাংশ ও ষ্ট্রীট লাইটিংয়ে ১ শতাংশ মিলে অ্যানুয়েল প্রপার্টি ভ্যালু ৫ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে৷ এই ইস্যুতে অহেতুন বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে বলে জানান তিনি৷ ট্রেড লাইসেন্স এর উপরও প্রস্তাবিত বৃদ্ধি অনেক ক্ষেত্রেই প্রত্যাহৃত হয়েছে বলে জানা গেছে৷

 

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.