Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
কোলেস্টরেল সম্বন্ধে ভ্রান্ত ভাবনা
By Our Correspondent, 09/04/2017, Agartala

আজকালকার ব্যস্ত জীবনে কোলেস্টরেল হচ্ছে একটি উদ্বেগের কারণ।  ছোট শিশু থেকে শুরু করে বয়স্কদের মধ্যে পাওয়া যায় এই কোলেস্টরেল।  আমাদের মধ্যে একটি  ভাবনা রয়েছে যে কোলেস্টরেল মানেই শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক। কিন্তু আসলে এই ভাবনা সম্পূর্ণ ভ্রান্ত। আসুন জেনে নেই কোলেস্টরেল সম্বন্ধে ভ্রান্তভাবনাগুলি সম্পর্কে :-

১. শরীরের পক্ষে খুব খারাপ:- সর্বপ্রথম মনে রাখতে হবে আমাদের দেহে দু রকমের কোলেস্টরেল আছে।  একটি হচ্ছে ভালো কোলেস্টরেল বা HDL,অন্যটি খারাপ কোলেস্টরেল বা LDL. ভালো কোলেস্টরেল আমাদের ধমনীতে খারাপ কোলেস্টরেল জমতে না দেওয়া সহ আরও গুরুত্বপূর্ণ কাজ সম্পাদন করে। তাই আমাদের খাবারে যখন এই ভালো কোলেস্টরেলের মাত্রা কমতে থাকে তখনি শরীরে নানা উপসর্গ দেখা দিতে থাকে। তাই শরীরে ভালো কোলেস্টরেল ধরে রাখতে অলিভ অয়েল, নানাধরণের ডাল , ফাইবার যুক্ত ফল,বিভিন্ন ধরণের বাদাম, সয়াবিন সহ এভোকাডো নিজের ডায়েটে যুক্ত ক্করুন।

২. শরীরে কোলেস্টরেলের অপ্রয়োজনীয়তা :- শরীরে কোলেস্টরেলের প্রয়োজনীয়তা নেই, এটি একেবারে ভ্রান্ত ভাবনা। যখন শরীরে কোনো নতুন কোষ তৈরি হয় তখন কোলেস্টরেল সেই প্রক্রিয়ায় সাহায্য করে।  বিভিন্ন হরমোন যেমন ইস্ট্রোজেন, টেস্টোস্টেরোন , এড্রোনাল কোলেস্টরেল ছাড়া কোনোমতেই তৈরি হতে পারে না।  এছাড়া ভিটামিন D তৈরি ও মেটাবলিসম ঠিক রাখতেও কোলেস্টরেল খুব সাহায্য করে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে কোলেস্টরেল ছাড়া আপনি বাঁচতেই পারবেন না।

৩. রোগা ব্যক্তিরা কোলেস্টরেলের শিকার হননা :- এ কথা সম্পূর্ণ  ভুল যে শুধুমাত্র মোটা ব্যাক্তিদের কোলেস্টরেলের সমস্যা থাকে।  রোগা ব্যক্তিদেরও কোলেস্টরেলের সমস্যা থাকতে পারে। একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যারা রোগা হন তারা অনেক সময় অপরিমিত খাদ্যগ্রহণ করেন।  ফলে  শরীরে নানা সমস্যা দেখা দেয়।

৪. কোলেস্টরেল ও জিন পরস্পর যুক্ত নয় :-কোলেস্টরেল ও জিন  পরস্পর যুক্ত নয়, এ কথা সম্পূর্ণ ভুল।খারাপ কোলেস্টরেল শরীরে জমার পেছনে রয়েছে জিনগত সমস্যা।  তাই পূর্বে সতর্ক হয়ে চিকিত্সকের পরামর্শ নিন।     

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.