Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
রোজ ডিম খেলে কী হবে জানেন ?
By Our Correspondent, 07/07/2017, Agartala

ডিম খেলে কোলেস্টেরল বেড়ে যাবে। ওজন বাড়ায়। এই প্রচলিত ধারণায় আপনি হয়তো ডিম খাওয়াই বন্ধ করে দিয়েছেন। ঠিক কি না ?
আপনি কিন্তু ভুল করছে
ন। হ্যাঁ, ঠিকই । আপনি ভুল করছেন !
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লুইসিয়ানার বায়োমেডিক্যাল রিসার্চ সেন্টারের সাম্প্রতিক একটি গবেষণা কিন্তু তাই বলছে।
ওই সমীক্ষায় চিকিত্‍‌সকরা বলছেন, ভালো থাকার জন্য রোজ দুই থেকে ৩টি ডিম খাওয়া উচিত।


কি বলছেন চিকিৎসকরা ?

১. হৃদরোগের সম্ভাবনা হ্রাস করে :- আমেরিকার লুইসিয়ানার বায়োমেডিক্যাল রিসার্চ সেন্টারে ১৫২ জন অতিস্থুল ব্যক্তিদের তিনটি ভাগে ভাগ করা হয়। একটি গোষ্ঠীকে  প্রাতঃরাশে যা ইচ্ছে তাই খেতে বলা হয়। দ্বিতীয় দলকে প্রাতঃরাশে দুটি করে ডিম খেতে বলা হয়। তৃতীয় গোষ্ঠীকে বলা হয় ব্যাগেলস খেতে। দেখা গিয়েছে, যাঁরা প্রতিদিন দুটি করে ডিম খেয়েছেন, তাঁরা অন্য দুই গোষ্ঠীর থেকে ৬৫ শতাংশ বেশি ওজন ঝরিয়েছেন। পেটের মেদ ঝরিয়েছেন ৩৫ শতাংশ। কিভাবে তা সম্ভব ? ডিমে থাকা প্রচুর পরিমাণ ওমেগা-৩ রক্তে থাকা ট্রাইগ্লিসারিড লেভেল কমিয়ে আনতে সাহায্য করে। যার জেরে হৃদরোগের সম্ভাবনা কমে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন ।

২. বয়সকে ধরে রাখে:- গবেষণা বলছে, ডিম ত্বকের বলিরেখা পড়তে দেয় না। ফলে বয়স বৃদ্ধিজনীত ত্বকের সমস্যা কমিয়ে দেয়। চামড়ায় উজ্জ্বলতা আনে। ত্বকের ক্যান্সারও রোধ করে। বিজ্ঞানীদের মতে, ডিমের কুসুমে প্রাকৃতিক হলুদ রং থাকে। ওই রঙে প্রচুর পরিমাণ ক্যারোটেনয়েড থাকে বলে ত্বককে উজ্জ্বল করে।

৩. প্রসবজনীত সমস্যার ঝুঁকি কমায়:- একটি ডিমে ০.৭ মিলিগ্রাম ভিটামিন B9 থাকে, যাকে ফলিক অ্যাসিডও বলা হয়। গর্ভাবস্থায় শরীরে ফলিক অ্যাসিডের পরিমাণ কম হলে শিশুর সেন্ট্রাল নার্ভাস সিস্টেম ঠিক মতো তৈরি হয় না। ফলে নার্ভের রোগের সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

৪. চুল, ত্বক ও লিভার ভালো রাখে:- ডিমে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন B12, বায়োটিন ও প্রোটিন থাকে। যা চুলের বৃদ্ধি ও চামড়ার জন্য খুবই উপকারী। বিশেষ করে ডিমের কুসুম চুলের জন্য দারুণ উপকারী।

৫. চোখ ভালো রাখে:- ডিমে থাকা লিউটিন, ভিটামিন A ও zeaxanthin চোখের জন্য খুবই উপকারী।দৃষ্টিশক্তি বাড়ায়। দিনের আলোয় চোখের উপর যে চাপ পড়ে, তা কমিয়ে দেয়।

৬. ক্যান্সারের সম্ভাবনা কমায়:- গবেষণায় দেখা গিয়েছে, একটি ডিম স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি ১৮ শতাংশ কমিয়ে দেয়। শরীরে ইস্ট্রোজেন হরমোনের ক্ষরণ বাড়িয়ে স্তন ক্যান্সারের সম্ভাবনা কমিয়ে দেয়।

৭. হজম ক্ষমতা বাড়ায় ও সুস্থ রাখে:- ডিমে থাকে choline, যা শরীরে মেটাবলিজমের জন্য অত্যন্ত উপকারী। ফলে এনার্জি তৈরি হয়।

৮. শরীরের হাড় মজবুত করে:- ডিমে ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন D পরিমাণ বেশি থাকায়, হাড় ও দাঁত মজবুত করে। জয়েন্ট পেইন হওয়ার সম্ভাবনা কমায়।

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.