Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
OMG ! মানুষের কথা শুনছে না রোবট, তাই ‘আর্টিফিশিয়াল ইন্টালিজেন্স’ প্রজেক্ট বন্ধ করে দিল ফেসবুক
Burue Report, 02/08/2017, New york

জল্পনা জিইয়ে রেখে আর্টিফিশিয়াল ইন্টালিজেন্স (এআই) নিয়ে কাজ করার কথা জানিয়েছিল ফেসবুক। তবে কী ধরনের কাজ করছিল তা খোলাসা না করলেও এ বার নিরাপত্তা সংক্রান্ত ইস্যুতে স্বপ্নের সেই ‘এআই’-এর কাজ বন্ধই করে দিল ফেসবুক।

 ‘টেসলা’-র সিইও এলোন মাস্ক  ফেসবুকের সিইও মার্ক জুকেরবার্গকে আর্টিফিশিয়াল ইন্টালিজেন্সি নিয়ে কাজ না করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। টুইটারে তিনি বলেছিলেন, জুকেরবার্গের এই বিষয়ে ‘জ্ঞান’ কম।  তার কথায়‘এআই’ নিয়ে কাজ করা মানব সভ্যতার জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হতে পারে। এ নিয়ে  মাস্কের সঙ্গে জুকেরবার্গের কিছুটা কথা কাটাকাটিও হয়। সতর্ক বার্তার পর দু’দিনও কাটল না। নিরাপত্তার স্বার্থে ‘এআই’-এর প্রজেক্টই বন্ধই করে দিল জুকেরবার্গ।

ফেসবুকের তরফে গত রবিবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলা হয়েছে, ‘এআই’ সমৃদ্ধ চ্যাটবটসগুলি আচমকাই নিজেদের মধ্যে এক অজানা ভাষায় কথা বলা শুরু করেছে। মানুষের পক্ষে এই ভাষাগুলি বোঝা সম্ভবপর হচ্ছিল না।

সাধারণতঃ চ্যাটবটসদের নির্দেশ দেওয়ার জন্য ইংরাজি ভাষা ব্যবহার করা হয়। কিন্তু ফেসবুকের ওই রোবট সমৃদ্ধ মেশিনগুলি নিজেদের মধ্যে এমন একটি ভাষা তৈরি করেছিল যা শুধু ‘এআই’ মেশিনগুলোর পক্ষেই বোঝা সম্ভব। নতুন এই ভাষায় বিশেষজ্ঞদের দেওয়া কোনও রকম নিয়মও মানছিল না মেশিনগুলি। শেষপর্যন্ত পরিস্থিতি হাতের নাগালের বাইরে চলে যায় এই আশঙ্কায়  ‘এআই’ মেশিনগুলি ‘শাট ডাউন’ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফেসবুক।

এ যেন সিনেমার গল্প ‘টার্মিনেটর টু’-র স্কাইনেটের কথাই মনে করিয়ে দিয়েছে। সিনেমার সেই ভয়ঙ্কর আর্টিফিশিয়াল ইন্টালিজেন্স-এর থাবায় প্রায় গ্রাস হয়ে গিয়েছিল গোটা মানবসভ্যতা। রোবটশাসিত সেই পৃথিবীতে শোচনীয় পরিণতি হয়েছিল মানুষের। ফেসবুকের সাম্প্রতিক এই ঘটনা যেন সেই সিনেমার কথাই মনে করালো আরেকবার।

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.