Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
সুদীপের পরিবারকে ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ, ছেলেকে চাকরির প্রতিশ্রুতি মমতার
By Our Correspondent, 28/11/2017, Agartala
 

ত্রিপুরা্ স্টেট রাইফেলসের গুলিতে নিহত সাংবাদিক সুদীপ দত্ত ভৌমিকের পরিবারকে ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার৷ মঙ্গলবার রাজ্য মন্তি্রসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছেন তথ্য দপ্তরের মন্ত্রী ভানুলাল সাহা৷ তবে ত্রিপুরা সরকারের সহযোগিতাকেও হার মানালেন মমতা বন্দোপাধ্যায়৷ নিহত সাংবাদিকের ইঞ্জিনিয়ারিং পাঠরত পুত্রকে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অধীনে চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন৷ শুধু তাই নয়, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে সুদীপ দত্ত ভৌমিকের মেয়ের পড়াশুনার খরচ বাবদ এদিন নগদ একলক্ষ টাকাও তুলে দেওয়া হয়েছে৷

গত ২১ নভেম্বর টিএসআর দ্বিতীয় ব্যাটেলিয়ানের কমান্ডেন্ট তপন দেববর্মা ব্যাটেলিয়ান হেডকোয়ার্টারে ডেকে নিয়ে গুলি করে হত্যা করেছিলেন সাংবাদিক সুদীপ দত্ত ভৌমিককে৷ এই ঘটনার সিবিআই তদন্ত এবং ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার পাশাপাশি সুদীপের দুই সন্তানের পড়াশুনার যাবতীয় ব্যয়ভার রাজ্য সরকারকে বহন করতে দাবি জানিয়েছে রাজ্যের সবকয়টি সংগঠনের সমন্বয়ে গড়ে তোলা সংগঠন ফোরাম ফর প্রটেকশন অব জার্নালিস্টস৷ কিন্তু রাজ্য সরকার মঙ্গলবারের মন্তি্রসভার বৈঠকে সুদীপের পরিবারকে ১০ লক্ষ টাকা আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথাই ঘোষণা করেছে৷ এর আগে সাংবাদিক শান্তনু ভৌমিকের পরিবারকেও ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছিল৷

এ প্রসঙ্গে ক্ষুব্ধ সাংবাদিকদের বক্তব্য ছিল- সুদীপ মারা গেছে রাষ্ট্রীয় বাহিনীর গুলিতে৷ কিন্তু শান্তুনু ভৌমিকের মৃত্যু হয়েছিল সংঘর্ষের মধ্যে৷ এছাড়া সুদীপের দুটি সন্তানও রয়েছে যারা এখনো পড়াশুনা করছে৷ কিন্তু তথ্য দপ্তরের মন্ত্রী ভানুলাল সাহা অর্থের পরিমাণ বাড়ানো সম্ভব নয় বলেই কার্যত জানিয়ে দিয়েছেন৷ এছাড়া সুদীপের মৃত্যুর জন্য রাষ্ট্রীয় পুলিশ কিংবা বাহিনীকে দায়ি করা ঠিক নয় বলেও এদিন জানিয়ে দেন৷

ত্রিপুরা সরকার এখন পর্যন্ত ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ প্রদান করলেও সুদীপের পরিবারের কাউকে চাকরি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেনি৷ কিন্তু মঙ্গলবার কলকাতা থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত আগরতলায় এসে ছুঁটে যান সাংবাদিক সুদীপ দত্ত ভৌমিকের বাড়িতে৷ সেখানে গিয়ে পরিবারের হাতে এক লক্ষ টাকা তুলে দিয়েছেন৷ সেই সাথে ওড়িষ্যার কিট ইউনিভার্সিটিতে ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পাঠরত চতুর্থ বর্ষের ছাত্র সৌমিককে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অধীনে চাকরি প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন৷ ইচ্ছে করলে পাঠরত অবস্থায়ও সৌমিক চাকরিতে যোগ দিয়ে পড়াশুনা সম্পূর্ণ করতে পারবে বলে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে৷

 

 

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.