Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
গোটা পৃথিবীর নজর এই বৈঠকের দিকে, আলোচনায় বসলো দুই কোরিয়া
Burue Report, 09/01/2018, Siol

অবশেষে  আলোচনায় বসলো যুযুধান দুই কোরিয়া। আর এই আলোচনার পর পর সুর বদলেছেন ট্রাম্পও। সম্প্রতি তিনি বলেছেন, কিম জং উনের সঙ্গে কথা বলতে তাঁর কোনও আপত্তি নেই।
মার্কিন বিদেশ দফতরের মুখপাত্র কাটিনা অ্যাডামস বলেছেন, ‘‘কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করে তোলার লক্ষ্যে চাপ বহাল রাখার প্রয়োজনীয়তা এবং উত্তর কোরিয়ার মোকাবিলা ঐক্যবদ্ধ ভাবে করার বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আমরা নিবিড় যোগাযোগ রেখে চলছি। গত কয়েক মাস যাবৎ একটানা প্রবল উত্তেজনা, কূটনৈতিক সম্পর্কের সাঙ্ঘাতিক অবনতি, নিয়মিত যুদ্ধের হুঁশিয়ারি ও পাল্টা হুঁশিয়ারি চলছিল। সেই পরম্পরায় ছেদ টেনে শীতকালীন অলিম্পিক্সের আসরকে কেন্দ্র করে আলোচনায় বসল দু’দেশ। স্বভাবতই  এই বৈঠকের দিকে এখন নজর গোটা বিশ্বের।

বাহিনী-রহিত অঞ্চলের যে গ্রামকে দুই কোরিয়ার সমঝোতার প্রতীক হিসেবে ধরা হয়, সেই পানমুনজোমে বৈঠক আয়োজিত হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ার অংশে নির্মিত পিস হাউজে বৈঠক করেছেন দুই কোরিয়ার প্রতিনিধিরা। উত্তর কোরিয়ার প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে রয়েছেন রি সন গন। দুই কোরিয়ার পুনর্মিলনের লক্ষ্যে উত্তর কোরিয়ায় যে কমিটি রয়েছে, সেই ‘কমিটি ফর পিসফুল রিউইনিফিকেশন অব দ্য ফাদারল্যান্ড’-এর চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন রি। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে রয়েছেন সে দেশের একত্রীকরণ মন্ত্রী (ইউনিফিকেশন মিনিস্টার) চো মিয়ং গিয়ন।

উত্তর কোরিয়ার সীমান্ত পেরিয়ে জয়েন্ট সিকিওরিটি এরিয়া হয়ে এ দিন পিস হাউজে পৌঁছন রি ও তাঁর সঙ্গীরা। পিস হাউজে পা রেখেই রি বলেন, ‘‘এই বৈঠককে দারুণ ভাবে ফলপ্রসূ করে তোলার ভাবনা নিয়েই আজ আমরা এখানে এসেছি, সেটাই হবে আমাদের ভাইদের (দক্ষিণ কোরিয়া) জন্য নতুন বছরের প্রথম উপহার, যাঁরা এই বৈঠক নিয়ে অত্যন্ত আশাবাদী।’’

দক্ষিণ কোরিয়ার তরফে চো বলেন, ‘‘দীর্ঘ দিন পরস্পরের থেকে বিচ্ছিন্ন থাকার পর আবার আমাদের কথা শুরু হল। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি, প্রথম পদক্ষেপটা করতে পারলেই অর্ধেকটা পথ পেরনো হয়ে যায়।’’

এ বারের শীতকালীন অলিম্পিক্সের আসর বসছে দক্ষিণ কোরিয়ার প্যেয়ংচ্যাং-এ। উত্তর কোরিয়ার অ্যাথলিটরাও সেই আসরে অংশ নেওয়ার যোগ্যতা অর্জন করেছেন। কিন্তু যে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে উত্তরের বিবাদ চরমে, সেই দক্ষিণ কোরিয়ায় আয়োজিত খেলার আসরে কী ভাবে যোগ দেবেন উত্তর কোরিয়ার খেলোয়াড়রা, তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছিল। সেই সংশয় কাটাতে তথা দক্ষিণে আয়োজিত আসরে উত্তরের প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণ মসৃণ করে তুলতেই মঙ্গলবার বৈঠকে বসেছেন দু’দেশের প্রতিনিধিরা।

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.