Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
২০১৮ তে ইসরোর সেরা উপহার, সফল উৎক্ষেপণ হলো ১০০তম উপগ্রহের
Burue Report, 12/01/2018, Sriharikota

নতুন বছরে বড় উপহার দিল ইসরো। এদিন মহাকাশে পাড়ি দিল ইসরোর ১০০তম উপগ্রহ। শুক্রবার সকাল ৯টা ২৮ মিনিটে শ্রীহরিকোটার সতীশ ধবন মহাকাশ কেন্দ্র থেকে সফল উত্‌ক্ষেপণ হয় উপগ্রহ বহনকারী রকেট পিএসএলভি-সি ৪০-র। ৬টি দেশের ৩১টি উপগ্রহ নিয়ে মহাকাশের উদ্দেশে পাড়ি দিয়েছে পিএসএলভি-সি ৪০।
ইসরো সূত্রে খবর, ৩১টি উপগ্রহের মধ্যে রয়েছে আবহাওয়া পর্যবেক্ষণকারী ভারতের ‘কার্টোস্যাট-২’ সিরিজের একটি উপগ্রহ। এ ছাড়া ১০০ কেজি ওজনের একটি মাইক্রো এবং ১০ কেজি ওজনের একটি ন্যানো উপগ্রহও পাঠানো হয়েছে। বাকি ২৮টির মধ্যে রয়েছে কানাডা, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, কোরিয়া, ব্রিটেন এবং আমেরিকার উপগ্রহ। ৩১টি উপগ্রহের মোট ওজন ১, ৩২৩ কিলোগ্রাম।

এটি পিএসএলভি-র ৪২তম মিশন। উত্‌ক্ষেপণ থেকে শুরু করে কক্ষে পৌঁছতে পিএসএলভি-সি ৪০-র সময় লাগবে ২ ঘণ্টা ২১ মিনিটের মতো, জানিয়েছে ইসরো। দু’টি কক্ষপথে পাঠানো হবে উপগ্রহগুলোকে। পৃথিবীপৃষ্ঠ থেকে ৫৫০ কিলোমিটার দূরত্বে ৩০টি এবং ৩৫৯ কিলোমিটার দূরত্বে আর একটি উপগ্রহকে পাঠানো হবে। তাই এই মিশনটাকে চ্যালেঞ্জিং বলছেন ইসরোর বিজ্ঞানীরা। শুধু তাই নয়, ইসরোর দীর্ঘতম মিশনগুলোর মধ্যে অন্যতম এই মিশন।

২০১৭-র অগস্টে পিএসএলভি-সি ৩৯ রকেটের মাধ্যমে নেভিগেশন উপগ্রহ আইআরএনএসএস-১ এইচ পাঠিয়েছিল ইসরো। কিন্তু সেই মিশন ব্যর্থ হয়। সেই মিশনের ত্রুটি-বিচ্যুতির কথা মাথায় রেখেই এ বার আরও ভাল ভাবে তৈরি হয়ে এই মিশন সফল করতে উদ্যোগী হয়েছেন ইসরোর বিজ্ঞানীরা।

ইসরোর চেয়ারম্যান এস কিরণ এ দিনের মিশন প্রসঙ্গে বলেন, “গত বছরে পিএসএলভি উত্‌ক্ষেপণে বেশ কিছু সমস্যা তৈরি হয়েছিল। কিন্তু আজকের এই সফল উত্‌ক্ষেপণ প্রমাণ করে দিল যে আমরা সেই সমস্যা থেকে বেরিয়ে এসেছি। দেশকে নতুন বছরের উপহার দিতে পেরে আনন্দিত।”রাষ্ট্রপতি রামনাথ কবিন্দ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এ দিন টুইট করে ইসরোর বিজ্ঞানীদের অভিনন্দন জানান।

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.