Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
খিদে-তেষ্টায় মারতে সাহারায় ফেলে দিয়ে আসা হল ১৩ হাজার উদ্বাস্তুকে
Burue Report, 25/06/2018, Washington

অ্যান্ড্রুজ বেস থেকে টেক্সাসের উদ্দেশে যখন রওনা হন আমেরিকার ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প, তখন তিনি যে জ্যাকেটটি পরেছিলেন, তার পিঠে এটাই লেখা ছিল। বর্তমানে যা ডনের আমেরিকায় নতুন বিতর্কের জন্ম দিয়েছে। প্রশ্ন উঠেছে, কীসের পরোয়া করেন না তিনি? সেই সব শরণার্থী-শিশু যাদের তিনি দেখতে গেলেন, তাদের পরোয়া করেন না? না কি তাঁর বার্তার লক্ষ্য অন্য কেউ? বিতর্কে ঘি ঢেলে প্রেসিডেন্ট টুইটারে লিখেছেন, ‘মেলানিয়ার জ্যাকেটের পিছনে যা লেখা আছে, তা ফেক নিউজ মিডিয়াকে উদ্দেশ্য করে। মেলানিয়া বুঝতে পেরেছেন, ওরা কতটা অসৎ। উনি সত্যিই আর পরোয়া করেন না।’

ট্রাম্পের টুইট পড়ার পর অনেকেই বলছেন, প্রেসিডেন্টের কথা যদি সত্যি হয় তা হলে তো মানবিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে হয়। কারণ, মা-বাবার কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া শিশুদের দেখতে গিয়েছিলেন মেলানিয়া। অসহায় শিশুদের দুঃখ-কষ্ট বুঝতে গিয়েছিলেন। জানতে গিয়েছিলেন, কী ভাবে তাদের মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিতে পারবেন তিনি। এমন একটি মহৎ উদ্দশ্য নিয়ে টেক্সাস যাওয়ার সময় তাঁর এমন ‘বার্তা’বহ জ্যাকেট পরার দরকার কী ছিল? এটা তো ওই মহৎ উদ্দেশ্যকে ছোট করা। তাই নয় কি?

শরণার্থী-বিতর্কে শুরু থেকেই গোটা পৃথিবী ট্রাম্পের বিরুদ্ধে। স্বামীর উল্টোপথে হেঁটে সরব হয়েছিলেন মেলানিয়াও। প্রেসিডেন্ট এগজিকিউটিভ অর্ডার সই করে শিশুদের পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নেওয়ার পরই তিনি টেক্সাসে চলে যান ওই শিশুদের অবস্থা দেখতে। অস্থায়ী শিবিরগুলিতে গিয়ে তত্ত্বাবধানে থাকা ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলেন মেলানিয়া। জানতে চান, কী ভাবে তিনি সাহায্য করতে পারবেন। এ পর্যন্ত সবই ঠিক ছিল। তাঁর এমন উদ্যোগকে ধন্য ধন্য করছিলেন সবাই। কিন্তু, তালে কাটে জ্যাকেটে।

বিতর্কটি দানা বাঁধে মেলানিয়া যখন টেক্সাসে। মার্কিন মিডিয়া ততক্ষণে ফ্যাশন ব্র্যান্ড ‘জারা’র ওয়েবসাইট থেকে ওই জ্যাকেটের ছবি এবং দাম খুঁজে বের করে ফেলেছে। বিভিন্ন মহলে নিন্দাও শুরু হয়ে গিয়েছে। অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল টুইটারে লেখে, ‘আমরা বাকরুদ্ধ।’ যদিও, ট্রাম্প শিবিরের তরফ থেকে বলা হয়, ‘এটা একটা জ্যাকেট মাত্র। এর মধ্যে অন্য অর্থ খোঁজা অনাবশ্যক। ফার্স্ট লেডি যে উদ্যোগ নিয়েছেন, সেটা না দেখে মিডিয়া কী করে তাঁর পোশাকের দিকে তাকিয়ে রয়েছে!’

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.