Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
প্রয়াত তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী, তামিলনাড়ু জুড়ে শোক, মেরিনা বিচে করুণানিধির মরদেহ সমাধিস্থ করতে চেয়ে আদালতে ডিএমকে
Burue Report, 07/08/2018, chennai
 

প্রয়াত হলেন তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এম করুণানিধি | মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চেন্নাইয়ের কাবেরি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ডিএমকে সুপ্রিমোর | মৃত্যুকালে তাঁর বয়েস হয়েছিল ৯৪ বছর | আজ সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটে হাসপাতালের তরফে মেডিক্যাল বুলেটিন প্রকাশ করে ডিএমকের স্রষ্টা করুণানিধির মৃত্যু দেওয়া হয়৷

অভিভাবকহীন হয়ে পড়ল ডিএমকে | মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চেন্নাইয়ের কাবেরি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ডিএমকে সুপ্রিমোর | মৃত্যুকালে তাঁর বয়েস হয়েছিল ৯৪ বছর | দীর্ঘদিন ধরে মূত্রনালির সংক্রমণে ভুগছিলেন ডিএমকে সুপ্রিমো এম করুণানিধি | চেন্নাইয়ের গোপালাপূরমে নিজস্ব বাসভবনেই তাঁর চিকিত্সা চলছিল| কিন্তু, গত ২৮ জুলাই গভীর রাতে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তড়িঘড়ি তাঁকে কাবেরী হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়| আজ সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কলাইনার |
এর আগে মঙ্গলবার কাবেরী হাসপাতালের তরফ বিকেলে প্রকাশিত এক মেডিক্যাল বুলেটিনে বলা হয়েছে, \"করুণানিধির শারীরিক পরিস্থিতির উল্লেখযোগ্য অবনতি হয়েছে। গত কয়েক ঘণ্টায় অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে।\" আরও জানানো হয়েছে যে, সর্বোচ্চ পর্যায়ের সাপোর্ট দেওয়া সত্বেও করুণানিধির শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলি ক্রমশ কাজ করা বন্ধ করে দিচ্ছে। তাঁর অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক। এরপর সন্ধে ৬টা ১০ মিনিটে একটি যুগের অবসান ঘটিয়ে পরলোকগমন করেন তামিলনাড়ু পাঁচবারের মুখ্যমন্ত্রী |

এদিকে, এদিন করুণানিধির স্বাস্থ্যের অবনতির কথা ছড়িয়ে পড়তেই শোকার্ত হয়ে পড়েন ডিএমকে নেতা-কর্মী সহ করুণানিধির অনুগামীরা| হাসপাতালের বাইরে ভিড় জমান কয়েক হাজার অনুগামী। পরিস্থতির মোকাবিলা করতে মোতায়েন করা হয় পুলিশ। এদিন সকালে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কে পালানিস্বামী বাসভবনে যান ডিএমকের কার্যকারী সভাপতি এম কে স্টেলীন, এম কে আলাগিরি এবং করুণানিধির মেয়ে কানিমোঝি। বৈঠকে মারিনা বিচে প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা হয়। প্রসঙ্গত ওইখানেই বহু বিশিষ্ট রাজনীতিবিদদের অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছিল। কিন্তু করুণানিধির শেষকৃত্য সেখানে সম্পন্ন করা নিয়ে বিতর্ক দেখা দেয়।

প্রসঙ্গত, বেশ কিছুদিন ধরেই মূত্রনালির সংক্রমণে জ্বরে ভুগছেন ডিএমকে সুপ্রিমো এম করুণানিধি| চেন্নাইয়ের গোপালাপূরমে নিজস্ব বাসভবনেই তাঁর চিকিত্সা চলছিল| কিন্তু, গত ২৭ জুলাই গভীর রাতে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তড়িঘড়ি তাঁকে কাবেরী হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়|

অনুমতি না পেয়ে মেরিনা বিচে করুণানিধির মরদেহ সমাধিস্থ করতে চেয়ে আদালতে গেছে ডিএমকে | ডিএমকের তরফে মেরিনা বিচেই দলের প্রয়াত সভাপতি এম করুণানিধির মরদেহ সমাধিস্থ করতে চাওয়া হয়েছিল৷ কিন্তু তামিলনাড়ুর এআইডিএমকে সরকার সেই অনুরোধ ফিরিয়ে দিয়েছে৷ এরপরই আদালতের দ্বারস্ত হয় করুণানিধির দল |রাতেই শুনানি হবে মাদ্রাজ হাইকোর্টে |

তাঁর বয়েস হয়েছিল ৯৪ বছর | সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিটে হাসপাতালের তরফে মেডিক্যাল বুলেটিন প্রকাশ করে ডিএমকের স্রষ্টা করুণানিধির মৃত্যু দেওয়া হয়৷ তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি, উপ-রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী। এছাড়াও শোকগ্রস্ত দেশের রাজনৈতিক মহল। বুধবার করুণানিধির প্রয়ানের কারণে তামিলনাডুতে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। সাতদিন পর্যন্ত শোক পালন করা হবে। আগামীকাল তামিলনাডু পৌছবেন প্রধানমন্ত্রী। এদিনই চেন্নাই পৌছিয়ে গিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কর্ণাটকের রাজ্য সরকার বুধবার শোক দিবস পালন করবে। গোপালপুরমে বাড়িতে শায়িত রয়েছে করুণানিধির নশ্বর দেহ।

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.