Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে রুদ্ধশ্বাস জয় ভারতের
Burue Report, 28/09/2018, Mumbai

জয়ের কাছে এসেও স্বপ্নপূরণ করতে ব্যর্থ হল বাংলাদেশ৷ এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের বিরুদ্ধে রুদ্ধশ্বাস লড়াই করেও কাপ জয়ের স্বাদ পেল না বাংলাদেশ৷ শুক্রবার দুবাইয়ে থ্রিলার ফাইনালে বাংলাদেশকে তিন উইকেটে হারিয়ে সপ্তমবার এশিয়া সেরা হল ভারত৷ বিরাট কোহলিকে ছাড়ায় এশিয়া চ্যাম্পিয়ন হল ‘মেন ইন ব্লু’৷ পাকিস্তান ও বাংলাদেশকে দু’বার করে হারিয়ে এশিয়া সেরার খেতাব জিতল রোহিতবাহিনী৷

এ যেন নিদাহাস ট্রফি ফাইনালের পুনরাবৃত্তি৷ ফাইনালে প্রতিপক্ষ সেই বাংলাদেশ৷ থ্রিলার ফাইনাল জিতে চ্যাম্পিয়ন সেই ভারত৷ ছ’মাস আগে নিদাহাস ট্রফি ফাইনালে ভারতকে জিতিয়ে হিরো হয়েছিলেন দীনেশ কার্তিক৷ আর এদিন ‘মেন ইন ব্লু’-র খেতাব জয়ের নায়ক কেদার যাদব৷ হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট নিয়ে অবসৃত হয়েও ফের মাঠে নেমে দলকে জেতান মহারাষ্ট্রের ডানহাতি ব্যাটসম্যান৷ ২৭ বলে ২৩ রানে অপরাজিত থাকেন কেদার৷ এর আগে বল হাতে দু’টি উইকেট তুলে নিয়ে বাংলাদেশ ইনিংসের ছন্দপতন ঘটান তিনি৷
২২৩ রান তাড়া করতে নেমে এদিন শুরুটা ভালো হয়নি ভারতের৷ মাত্র ৩৫ রানে ফর্মে থাকা শিখর ধাওয়ানের উইকেট হারায় ‘মেন ইন ব্লু’৷ এর পর দ্রুত অম্বাতি রায়ডু (২) এবং ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মার (৪৮) উইকেট খুঁইয়ে চাপে পড়ে যায় ভারত৷ ৮৩ রানে তিন উইকেট হারানোর পর ভারতীয় ইনিংসকে টেনে নিয়ে যান ধোনি ও কার্তিক৷ চতুর্থ উইকেটে দু’জনে ৫৪ রান যোগ করেন৷ কিন্তু ব্যক্তিগত ৩৭ রানে কার্তিক ও ৩৬ রানে ধোনিকে প্যাভিলিয়নে ফিরিয়ে ম্যাচে ফেরে বাংলাদেশ৷ দারুণ বোলিং করে ভারতের মিডল-অর্ডারকে চাপে রাখে বাংলাদেশ বোলাররা৷ কিন্তু ঠাণ্ডা মাথায় ব্যাটিং করে ভারতকে কাঙ্খিত লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে নিয়ে যান কেদার যাদব ও রবীন্দ্র জাদেজা৷ কিন্তু হ্যামস্ট্রিংয়ের টান ধরায় মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন কেদার৷ এ সময় জাদেজাকে সঙ্গ দিয়ে ৩১ বলে ২১ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন ভুবনেশ্বর কুমার৷ কিন্তু ভুবি ড্রেসিংরুমে ফেরার পর ফের মাঠ নেমে কুলদীপ যাদবকে সঙ্গে নিয়ে দলকে জিতিয়ে মাঠে ছাড়েন কেদার৷

ওপেনিং জুটি ভাঙতে বিশ্বের দু’নম্বর দল ভারত সময় নেন ২১ ওভার৷ ২০.৫ ওভারে অনিয়মিত স্পিনার কেদার যাদবের বলে আউট হেন মেহেদি৷ ব্যক্তিগত ৩২ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি৷ জুটি ভাঙলেও দলকে এগিয়ে নিয়ে যান লিটন৷ ৮৭ বলে ১১টি বাউন্ডারি ও ২টি ওভার বাউন্ডারির সাহায্যে সেঞ্চুরি করেন এই ডানহাতি ওপেনার৷ দেশের জার্সিতে প্রথম সেঞ্চুরি লিটনের৷ শেষ পর্যন্ত ১১৭ বলে ১২১ রানের ইনিংস খেলেন তিনি৷ লিটনের ইনিংস সাজানো ১২টি বাউন্ডারি ও দু’টি ওভার বাউন্ডারিতে৷ বাংলাদেশ হারলেও ম্যাচের সেরা হন তিনি৷ তবে দু’টি সেঞ্চুরি-সহ টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি রান (৩৪২) করে সিরিজের সেরা ভারতের বাঁ-হাতি ওপেনার শিখর ধাওয়ান৷
স্পিনাররা ভারতকে ম্যাচে ফেরান৷ এক সময় মনে হচ্ছিল রোহিতদের সামনে ২৮০ রানের চ্যালেঞ্জে ছুঁড়ে দিতে পারেন মাশরাফিরা৷ কিন্তু ভারতীয় স্পিনারদের বিরুদ্ধে ইনিংসকে আড়াইশোর গণ্ডিতে পৌঁছতে পারেননি বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা৷ ১০ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৪৫ রান দিয়ে ৩টি উইকেট নেন কুলদীপ এবং ৯ ওভারে ৪১ রানে দু’টি শিকার কেদারের৷

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.