Facebook Google Plus Twiter YouTube
   
প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে সরকারি কর্মচারীদের জন্য সপ্তম পে কমিশন ঘোষণা রাজ্য সরকারের, প্রয়োজন মাসে ৭২০ কোটি টাকা, অক্টোবর থেকে হচ্ছে কার্যকর
By Our Correspondent, 09/10/2018, Agartala
 

অবশেষে ত্রিপুরার সরকারি কর্মচারীদের শিকেয় জুটলো কেন্দ্রীয় হারে বেতনক্রম। ভার্মা কমিটির রিপোর্ট হবুহু গ্রহণ করলো রাজ্য সরকার। প্রায় সাড়ে তিন ঘন্টারও বেশি সময় ধরে আলোচনার পর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লবকুমার দেব সপ্তম বেতনক্রম ঘোষণার কথা জানান। সাংবাদিক সম্মেলনে অনান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপমুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণূ দেববর্মণ, স্বাস্থ্যমন্ত্রী সুদীপ রায়বর্মণ, রাজস্বমন্ত্রী নরেন্দ্রচন্দ্র দেববর্মা এবং শিক্ষামন্ত্রী রতনলাল নাথ।

বলাবাহুল্য যে, সপ্তম পে কমিশন কার্যকর হলে এখন থেকে প্রতিমাসে ৭২০ কোটি টাকা খরচ হবে। এর আগে খরচ হতো ৬৪৪ কোটি টাকা। নতুন করে লাগবে আরো ৭৬ কোটি টাকা প্রতি মাসে। এরফলে বছরে প্রয়োজন হবে ৮৬৪০ কোটি টাকা।
অর্থমন্ত্রী জিষ্ণু দেববর্মন জানান, নতুন বেতনক্রমে এখন থেকে গ্রুপ সি কর্মচারীদের বেতন হবে ন্যূনতম ১৮ হাজার টাকা এবং গ্রুপ ডি কর্মচারীদের ক্ষেত্রে নূন্যতম বেতন হবে ১৬ হাজার টাকা।  যদিও কেন্দ্রীয় সরকারের ক্ষেত্রে গ্রুপ ডি পদ নেই।
উল্লেখ্য, গত ৫ অক্টোবর এক্সপার্ট কমিটির চেয়ারম্যান পিপি ভার্মা মুখ্যমন্ত্রীর হাতে রিপোর্ট তুলে দিয়েছিলেন। কিন্তু তড়িঘড়ি করে এদিন মন্ত্রিসভার বৈঠকে উপস্থাপন করার পর একই দিনে সিদ্ধান্তও হয়ে যায়।
এদিন রেকর্ড  সাড়ে তিনি ঘন্টা আলোচনা হয় মহাকরণে সপ্তম পে কমিশন বিষয়ে।  অবশেষে সিদ্ধান্ত হয়েছে, কমিটির সুপারিশ মেনে রাজ্যের সরকারি কর্মচারীদের  জন্য সপ্তম পে কমিশন দেওয়ার বিষয়টি। চলতি বছরের ১ অক্টোবর থেকে কার্যকর হবে বলে জানানো হয়েছে।
সাংবাদিক সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী রতনলাল নাথ বলেছেন, নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী সরকার সপ্তম বেতন কমিশন প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয়। এদিকে সরকারের এই সিদ্ধান্তে কর্মচারী মহলে বইছে খুশির হাওয়া। মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন অনেক আর্থিক প্রতিকূলতার মধ্যেও সরকার প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেছে। এরজন্য মুখ্যমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন মন্ত্রী সুদীপ রায় বর্মন। এরফলে বিজেপি আইপিএফটি জোট সরকার নিজেদের প্রতিশ্রুতি রাখতে পারলো বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী এনসি দেববর্মন।
উল্লেখ্য, পেনশনাররাও এরফলে উপকৃত হবেন। বিভিন্ন কর্মচারী সংগঠন এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। যদিও একটা অংশের সমালোচনা রয়েছে  ১-১-২০১৬ থেকে এফেক্ট না দেয়ায়।

 
Accessibility | Copyright | Disclaimer | Hyperlinking | Privacy | Terms and Conditions | Feedback | E-paper | Citizen Service
 
© aajkeronlinekagaj, Agartala 799 001, Tripura, INDIA.